সরাইল উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক প্রবীণ রাজনীতিবিদ আনিছুল ইসলাম ঠাকুর। বেপরোয়া গতির অবৈধ ট্রাক্টর চাপায় নির্ঘাত মৃত্যুর ঘাট থেকে অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন তিনি। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় সদর ইউনিয়নের বড়দেওয়ান পাড়ায় নিজ বাসভবন সংলগ্ন সড়কে এই দূর্ঘটনার কবলে পড়েছিলেন। হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরে বর্তমানে বুকের বাম পাশে ব্যাথা নিয়ে চিকিৎসাধীন আছেন। পারিবারিক ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, গত শুক্রবার মাগরিবের নামাজ আদায় করতে বাসা থেকে মসজিদের দিকে রওনা দেন। এ সময় বড়দেওয়ান পাড়া-বণিক পাড়া সরূ সড়কের মোড়ে ইউটার্ন করে একটি মাইক্রোবাস। গতি বেশি থাকায় নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি চালক। নিজেকে রক্ষার জন্য আনিছুল ইসলাম ঠাকুর পাশের দেওয়াল ঘেষে দাঁড়ান। তারপরও মাইক্রোটি উনাকে চাপা দিয়ে চালিয়ে যেতে থাকে। নিজেকে রক্ষার জন্য মাইক্রোটিতে জোরে একটি থাপ্পর দেন এই বিএনপি নেতা। চালক তখন মাইক্রোটির গতিরোধ করে দাঁড়ায়। ততক্ষণে বুকের বাম পাশের ব্যাথায় অস্থির হয়ে তিনি মাটিতে পড়ে যান। লোকজন দৌঁড়ে এসে উনাকে উদ্ধার করে সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসা শেষে বর্তমানে নিজ বাস ভবনে রয়েছেন। আনিছুল ইসলাম ঠাকুর বলেন, সরূ রাস্তায় এমন গতিতে গাড়ি চালানো মোটেও ঠিক না। আমাকে চাপা দিয়ে যেভাবে টেনে নিচ্ছিল। মৃত্যু নিশ্চিত ছিল। কিভাবে বাঁচলাম নিজেও বলতে পারছি না। তবে গ্রামের ভেকরের সড়কে চালকদের আরো সতর্কতার সাথে গাড়ি চালানো উচিত। আমি সকলের দোয়া চাই।

মাহবুব খান বাবুল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here