ষষ্ঠ ধাপে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার ইউনিয়নগুলোতে এবার কোনো দলীয় প্রতীক ছিলনা। গতকাল সোমবার (৩১ জানুয়ারি) শান্তিপূর্ণভাবে কসবা উপজেলার সাতটি ইউনিয়নি পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সবকটি ইউনিয়নেই ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোট নেওয়া হয়েছে। নির্বাচনে বাদৈর ইউনিয়ন থেকে প্রথমবার ভোটে দাঁড়িয়েই চমক দেখিয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী শিপন আহম্মদ ভূঁইয়া। চেয়ারম্যান পদে চশমা প্রতীকে ৪৭৭৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা শিপন বাদৈর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। এবার কসবা উপজেলার ইউনিয়নগুলোতে প্রার্থীদের জন্য কোনো দলীয় প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। সেজন্য সকল প্রার্থীরাই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন। বাদৈর ইউনিয়নে মোট ভোটকেন্দ্র ছিল ৯টি। এর মধ্যে ৭টি কেন্দ্রেই জয়ী হয়েছেন বাদৈর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শিপন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আবু জামাল খান অটোরিকশা প্রতীকে পেয়েছেন ৪১৩১ ভোট। বিজয়ী চেয়ারম্যান শিপন আহম্মদ ভূঁইয়া বলেন, আমার ওপর আস্থা রেখে আমাকে নির্বাচিত করার জন্য বাদৈর ইউনিয়নের সকল ভোটারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। এছাড়া অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দেওয়ার জন্য আমাদের অভিভাবক, মাননীয় আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। মন্ত্রী মহোদয়ের সহযোগীতায় বাদৈর ইউনিয়নকে আধুনিক একটি ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলব।

মোঃ নিয়ামুল ইসলাম আকঞ্জি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here