ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সরাইলে যাত্রবাহী চলন্ত বাসের পেছনে প্রাইভেটকার সজোরে আঘাত করায় একজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন আরো ৩ জন। আজ শুক্রবার সকালে মহাসড়কের বাড়িউড়া এলাকায় এ দূর্ঘটনাটি ঘটে। দূর্ঘটনায় কবলিত গাড়ি দুটি হাইওয়ে পুলিশ আটক করেছে। হাইওয়ে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, নিহত যাত্রীর নাম দুলাল ভূঁইয়া প্রকাশ দুলো ভূঁইয়া (৬০)। তিনি নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নের ফেদিরকান্দি গ্রামের আবদুর রহমান ভূঁইয়ার ছেলে। মৌলভী বাজার জেলা শহর থেকে ভাড়ায় চালিত একটি প্রাইভেটকারে করে শুক্রবার ভোরে দুলাল ভূঁইয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের বিশ্বরোড মোড়ের উদ্যেশ্যে রওনা দেয়। সাথে ছিল তাঁর ছেলে হানিফ ভূঁইয়াসহ ৪ জন। গাড়িটি মহাসড়কের সরাইলের বাড়িউড়া এলাকায় এসে যাত্রীবাহী একটি চলন্ত বাসকে পেছন থেকে সজোরে ধাক্কা দেয়। ফলে বিকট শব্দে প্রাইভেট কারের সামনের অংশ দুমড়েমুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মারা যান দুলাল ভূঁইয়া। আহত হন হানিফ ভূঁইয়া, জাবেদ মিয়া (২৮), নাজমুল হোসেন (৩০) ও দীন ইসলাম (২৬)। এদের মধ্যে দীন ইসলামকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদের সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ঘটনার পরই পালিয়ে যায় বাসের চালক। প্রা্‌ইভেট কারটি সড়কের উপর আটকে পড়ায় মহাসড়কের উভয় দিকে দীর্ঘ যানজট লেগে যায়। দূর্ভোগে পড়েন পথচারীরা। হাইওয়ে পুলিশ দূর্ঘটনায় কবলিত কারটি সড়ক থেকে সরিয়ে নিয়ে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক হয়। সরাইল খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাহজালাল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের লাশ থানায় আছে। গাড়ি দুটি জব্দ করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার পক্রিয়া চলছে।

মাহবুব খান বাবুল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here