ইউরোপের একটি জরিপের কথা উল্লেখ করে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল বলেছেন, ‘সারা বিশ্বে গণমাধ্যমের উপর মানুষের আস্থা কমে গেছে। মানুষ এখন আর গণমাধ্যমকে বিশ্বাস করে না। এটা শুধু আমাদের দেশে নয়, ইউরোপে জরিপ চালিয়ে জানা গেছে। ইউরোপের ১১টি দেশের ৬৩ শতাংশ মানুষ জানিয়েছিল, তারা গণমাধ্যমকে বিশ্বাস করেন না। কারণ এখনকার সংবাদপত্র কারো পক্ষে লিখে, কেউ আজেবাজে লিখে বা মিথ্যা লিখে। সাংবাদিকদের উপর তাদের আস্থা আরো কম।’মহান স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শনিবার অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। পৌর এলাকার মসজিদ রোডস্থ এ মালেক কনভেনশন সেন্টারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক ইউনিয়ন এ সমাবেশের আয়োজন করে। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাসস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিএফইউজে’র সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ। উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিসেবে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি ওমর ফারুক। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বিএফইউজে’র সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএফইউজে’র মহাসচিব দীপ আজাদ। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি দীপক চৌধুরী বাপ্পির সভাপতিত্বে বিশেষ আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএফইউজে’র সহ-সভাপতি মধূসুদন মন্ডল, কোষাধ্যক্ষ খায়রুজ্জামান কামাল, দপ্তর সম্পাদক সেবিকা মন্ডল, ইউনিয়ন নেতা দীপক কুমার আচার্য্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন জামি ও সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রহিম বিজন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি বিশ্বজিৎ পাল বাবু ও যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক ফরহাদুল ইসলাম পারভেজের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাহিত্য একাডেমির সভাপতি জয়দুল হোসেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ড্রাস্ট্রির সভাপতি আজিজুল হক, জাসদ সভাপতি আখতার হোসেন সাঈদ, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কাজী মাসুদ আহমেদ, সিপিবি সভাপতি সাজিদুল ইসলাম, সনাক সদস্য মোহাম্মদ আরজু, নাগরিক ফোরামের সভাপতি পিযূষ কান্তি আচার্য্য, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সদস্য সচিব সঞ্জীব ভট্টাচার্য্য, খেলাঘরের সাধারন সম্পাদক নীহার রঞ্জন সরকার, সাংবাদিক মাহবুব খান বাবুল। এ সময় সাংবাদিক নেতারা বলেন, ‘বেশির ভাগ মানুষ যার উপর বেশি আস্থা রাখে তিনি বড় সাংবাদিক। সাংবাদিক সংগঠন শুধু নেতা হওয়ার জন্য নয়, ভাল সাংবাদিক তৈরির জন্যে প্রয়োজন। অপসাংবাদিকতা দূর করতে প্রকৃত সাংবাদিকদেরকে ভ‚মিকা নিতে হবে।’ আলোচনা সভা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এতে তিতাস আবৃত্তি সংগঠন ও আবরণী আবৃত্তি চর্চা কেন্দ্রের শিল্পীরা আবৃত্তি করেন। সাংবাদিক হাবিবুর রহমান পারভেজের পরিবেশনা দিয়ে এ পর্বের শুরু হয়। সমাবেশে জেলা ও নয়টি উপজেলার ১৩০ জন সাংবাদিকসহ সুধী সমাজের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন। শুরুতে শহীদদের প্রতি ও আবৃত্তি শিল্পী হাসান আরিফের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here