সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক আবৃত্তিশিল্পী হাসান আরিফ আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শুক্রবার দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে রাজধানীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৭ বছর। তাঁর মৃত্যুতে সাহিত্য একাডেমির সভাপতি কবি জয়দুল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমিনসহ সংগঠনের সকলেই এক বিবৃতিতে শোক জানিয়েছেন। কবি জয়দুল হোসেন বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কৃতি সন্তান হাসান আরিফ দুই বাংলার জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব। সংস্কৃতি অঙ্গনে তাঁর অবদান অসামান্য। তাঁর মৃত্যুতে সংস্কৃতি অঙ্গনে এক অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে গেছে। আমরা তাঁর আত্মার মাগফেরাত কামনা করি। গত বছরের ২ ডিসেম্বর করোনা পজিটিভ হন হাসান আরিফ। পরদিন ৩ ডিসেম্বর তাকে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেদিনই শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয় তাকে। হাসান আরিফ সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক। বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের নেতৃত্বে ছিলেন তিনি। আশির দশক থেকে নিজে আবৃত্তি করছেন এবং সাংগঠনিক আবৃত্তিচর্চা ও প্রশিক্ষণে অসামান্য ভূমিকা পালন করে আসছেন। নব্বইয়ের স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে দেশের সব গণতান্ত্রিক-সাংস্কৃতিক আন্দোলনে সামনে থেকে সাহসের সঙ্গে নেতৃত্ব দিয়েছেন হাসান আরিফ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here