বাঞ্ছারামপুরে স্ট্রোকে হত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ

0
62
স্ট্রোকে হত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ
স্ট্রোকে হত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ

মোঃনিয়ামুল ইসলাম আকন্ঞ্জিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় আইয়ূবপুর ইউনিয়নে বাঁশগাড়ি গ্রামে স্ট্রোকের মৃত্যুকে হত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা ও ভয়ভীতি দেখিয়ে স্টাম্পে স্বাক্ষর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশের ভয়ভীতি দেখিয়ে স্টাম্পে স্বাক্ষর নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষ শিপন মিয়া, মোতালেম,মোহন, হোসেন মিয়া,আবু তাহের, ডালিম মিয়া সহ তাঁর লোকজনের বিরুদ্ধে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শনিবার (১২ মে) রাত ৯ টা সময় স্ট্রোকে মারা যায় ইব্রাহীম মিয়া ছেলে সমান্তর মিয়া (৩৫) পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তাদের কে হত্যা চেষ্টা বলে চালিয়ে দিতে চায়। এই ভয়ে এখন ঘরবাড়ি ছাড়া কামাল উদ্দিন, আলাউদ্দীন,তারা মিয়া,আল আমিন, সাফিয়া, ঝরনা বেগম, পাখি বেগম, হাসিনা খাতুন। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সমান্তর মিয়া গত শনিবার রাতে স্ট্রোক করে মারা যায়। এই ঘটনা ভিন্ন ক্ষেত্রে প্রবাহিত করতে হত্যার অভিযোগ উঠানো হচ্ছে।

ভয়ে ঘর ছাড়া ভুক্তভোগী পরিবার গুলো জানান, আমাদের ভাইয়ে ভাইয়ে কথা কাটাকাটি চলছে এমন সময় সমান্তর মিয়া আমাদের বাড়ির সামনে এসে জোরে চিল্লাচিল্লি করে। তখন তার ঘরে দরজার সামনে স্ট্রোক করে মারা যায়। এ সময় তার স্ত্রী ও সাথে ছিল। আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে আমরা এই ঘটনার সঠিক বিচার দাবি করি।এখন ভয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছি। আমাদের বাড়িঘর দখল করার জন্য প্রতিপক্ষ চেষ্টা করছে।

পাখি আক্তার বলেন, জোর করে আমার কাছে থেকে শিপনের দলবল স্বাক্ষর নিয়েছে। এদিকে স্ট্রোকে মারা যাওয়া সমান্তর মিয়ার দ্বিতীয় ছেলে আকাশ জানান, আমার বাবা স্ট্রোক করে মারা গেছে।প্রতিপক্ষ শিপন মিয়া সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায় নি।

বাঞ্ছারাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)নুরে আলম জানান,বিষয়টি হত্যা নাকি স্ট্রোক জনিত কারন ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পরে বলা যাবে। এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here