বুধবার (৩০ মার্চ) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়া উপজেলার ধরখার ইউনিয়নের চান্দপুর গ্রামে জমিজমা নিয়ে পূর্বশত্রুতার জেরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহতরা হলেন মো. রুবেল মিয়া (৩৬), জসিম (৩২), সাফিয়া বেগম (৬৫), জয়নাল (৩২), মামুন মিয়া (৪০), সিরাজ (৩৫), দেলোয়ার (৩০), সাহেদ মিয়া (১৬) ও আবুল মিয়া (৪৮)। এলাকাবাসী জানান, তিন বছর ধরে ধরখার ইউনিয়নের চান্দপুর গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য জহির মিয়ার সঙ্গে একই গ্রামের রউফ মিয়ার জমিসংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধ মীমাংসায় বুধবার দুপুরে চান্দপুর বাজারে দুই পক্ষের লোকজন সালিশে বসে। এ সময় জহির মিয়ার সঙ্গে রউফ মিয়ার বাগ্‌বিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। পরে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। ঘণ্টাব্যাপী চলা সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. সাব্বির হোসাইন জানান, আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে তাদের কারো অবস্থা আশঙ্কাজনক নয়। এ ব্যাপারে আখাউড়া থানার ধরখার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বিমল কর্মকার জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here