সরাইলে সাত্তারের সমর্থনে আওয়ামীলীগের বিশাল কর্মিসভা

0
51
সাত্তারের সমর্থনে আওয়ামীলীগের বিশাল কর্মিসভা
সাত্তারের সমর্থনে আওয়ামীলীগের বিশাল কর্মিসভা

মাহবুব খান বাবুল, সরাইল থেকে:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনের উপনির্বাচনে দলছুট নেতা উকিল আবদুস সাত্তার ভূঁইয়ার সমর্থনে বিশাল কর্মিসভায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সরাইলের সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত সভায় ৯টি ইউনিয়নের ওয়ার্ড ইউনিয়ন উপজেলা জেলার আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতা কর্মীরা উপস্থিত হয়েছিলেন। সভায় আওয়ামীলীগের সকল নেতা কর্মীরা স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি’র সাবেক এমপি প্রতিমন্ত্রী সাত্তারের পক্ষে কাজ করে জয়লাভ করার বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এ সময় মঞ্চে বসা আবদুস সাত্তার কোন রকমে কাঁপা কাঁপা গলায় দোয়া চাইলেও অন্য কোন কথা বলতে পারেননি। তারপরও খুশিতে মিছিল সহকারে অডিটরিয়াম ত্যাগ করেন আ’লীগের নেতা কর্মীরা। আজ মঙ্গলবার বিকাল ৩ টার পর থেকেই পূর্ব নির্ধারিত ‘উকিল আবদুস সাত্তার ভূঁইয়া সমর্থক গোষ্ঠী’ কর্তৃক আয়োজিত কর্মিসভায় যোগ দিতে ইউনিয়ন ও জেলা আ’লীগের নেতা কর্মীরা সরাইল সদরে প্রবেশ করতে থাকেন। বিকাল ৪টায় সরাইল উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পদক মো. সাইফুল ইসলাম ঠাকুরের সঞ্চালনায় ও সভাপতি এডভোকেট মো. নাজমুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আহমেদ হোসেন। সভায় বক্তব্য রাখেন- জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র. আ. ম উবায়দুল মুক্তাদির চৌধুরী এমপি, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আল-মামুন সরকার, সংরক্ষিত নারী আসনের (৩১২) আসনের সংসদ সদস্য উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম, সরাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুর, জেলা আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহাবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মঈন উদ্দিন মঈন, বেসরকারী শিক্ষক কর্মচারি কল্যাণ ট্রাষ্টের সদস্য সচিব অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু, বাংলাদেশ আইন সমিতির সাবেক সভাপতি মো. কামরূজ্জামান আনসারী, জেলা আ’লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আবদুল হান্নান রতন। তবে সভায় উপস্থিত থেকেও বক্তব্য দেওয়ার সুযোগ পাননি জেলা আ’লীগের সিনিয়র সহসভাপতি ও সাবেক মেয়র মো. হেলাল উদ্দিন, সহ-সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন, জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি এডভোকেট শাহানুর ইসলাম ও সম্পাদক এডভোকেট সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস। বক্তরা বলেন, বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ উকিল আবদুস সাত্তার ভূঁইয়া বেগম খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক জিয়ার অসৌজন্যমূলক ও রূঢ় আচরণের কারণেই বিএনপি থেকে পদত্যাগ করেছেন। আর তারেকের বেয়াদবির প্রতিবাদ জানিয়েছেন তিনি। তাই আমরা কেন্দ্রের নির্দেশে নম্র ভদ্র বয়োজেষ্ঠ এই মুরব্বির পক্ষে মাঠে নেমেছি। কিছু লোক আছে যাদের কোন গ্রহন যোগ্যতা নেই। তারা বিভিন্ন ধরণের মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ায়। বিভ্রান্তি সাত্তার সাহেবকে ধন্যবাদ জানাতে হয়। কারণ তিনি বৃদ্ধ বয়সে শীড়দাড়া শক্ত করে মাথা উঁচু করে তারেক জিয়ার বেয়াদবি ও ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিয়েছেন। ইনশাল্লাহ সরাইল আশুগঞ্জের মানুষ আবদুস সাত্তারের কলারছড়া মার্কায় ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে সাত্তার ভূঁইয়াকে আবারও সংসদের পাঠিয়ে তারেকের ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিবেন। তারা বলেন, সময় কম। আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের কোন নেতা কর্মী ঘরে বসে থাকবেন না। পাড়ায় মহল্লায় ওয়ার্ডের ঘরে ঘরে যাবেন। নারী পুরূষকে কেন্দ্রে উপস্থিতি নিশ্চিত করবেন। কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি ও ভোট কাষ্টিং করানোর পরিকল্পনা করূন। মসজিদে মসজিদে প্রচার করূন। সকলের মুরব্বি আবদুস সাত্তারকে জয়ী করতেই হবে। প্রধান অতিথি বলেন, বেয়াদব তারেক জিয়ার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ করতেই আজ আমরা আবদুস সাত্তারের পক্ষে। আপনারা ইলেকশনের দিন বাড়িতে বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে সকল ভোটারকে নিয়ে ভোট কাষ্ট করাবেন। সাত্তার এখ ন সবার। তারেকের বেয়াদবির প্রতিবাদেই আ’লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের সকল নেতা কর্মী সাত্তারের জন্য মাঠে নেমেছে। কলারছড়ি জিতে যাচ্ছে। জিতে যাবেই। তবে সবশেষে আবদুস সাত্তারকে ২-৩ জনে ধরে টেনে দাঁড় করালেও শুধু দোয়া চাইলেন। এর বেশি আর কোন কথা বলতে পারেননি তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here