সরাইলে ডাকাত ও ছিনতাইকারী চক্রের মুলহোতা রাসেল মিয়া গ্রেফতার

0
116

মাহবুব খান বাবুলঃ সরাইল থেকেঃ

সরাইলে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে আন্তঃজেলা ডাকাত ও ছিনতাকারী চক্রের মূলহোতা রাসেল (৩৫) কে গ্রেপ্তার করেছে সরাইল থানা পুলিশ। গত শুক্রবার গভীর রাতে সরাইল ও নাসিরনগর থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে নাসিরনগরের কুন্ডা ইউনিয়নের বিটোই গ্রাম থেকে রাসেলকে গ্রেপ্তার করেন। রাসেলের বিরুদ্ধে সরাইল থানায় একাধিক ডাকাতি ও দস্যুতা মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা মূলতবী রয়েছে। রাসেল সরাইল সদরের পূর্ব কুট্রাপাড়া গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে। পুলিশ জানায়, রাসেল দীর্ঘদিন ধরে সড়ক ও মহাসড়কে যাত্রীবাহী পরিবহনে ডাকাতি ও ছিনতাই করে আসছে। এছাড়াও নিজেকে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে লোকজনকে জিম্মি করে কৌশলে সর্বস্ব লুটে নিচ্ছে। তার বিরুদ্ধে রয়েছে মটরবাইক চুরির অভিযোগ। রাসেল আন্তঃজেলা ডাকাত ও ছিনতাইকারী চক্রেরও অন্যতম হোতা। সম্প্রতি নরসিংদী জেলার সুমন মিয়াসহ ১৩ জন রাতের বেলা শাহবাজপুর থেকে বাড়ি ফেরার পথে সরাইলের বিশ্বরোড এলাকায় আসার পর রাসেল বাহিনীর খপ্পরে পড়েন। তাদের গাড়ি আটক করে নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে জিম্মি করে ফেলে। পরে কৌশলে তাদেরকে নির্জন স্থানে নিয়ে অস্ত্রের ভয়ভীতি দেখিয়ে মুঠোফোন সেট, স্বর্ণের চেইন ও নগদ টাকাসহ ৪ লাখ ২৬ হাজার ৭ শত টাকার মালামাল ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় সরাইল থানায় রাসেল গংদের বিরুদ্ধে মামলা হয়। ঘটনার পরই আারেক হোতা সদর উপজেলার খাটিহাতা গ্রামের প্রয়াত আব্দুল কাদিরের ছেলে মো. আব্দুল গাফ্ফারকে (৩৮) গ্রেপ্তার করে সরাইল থানা পুলিশ। এরপর থেকেই পুলিশ হন্যে হয়ে খুঁজছিল রাসেলকে। একাধিক জায়গায় অভিযান করে রাসেলকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। অবশেষে গত শুক্রবার রাতে রাসেলকে গ্রেপ্তার করেছে সরাইল থানা পুলিশ। সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আসলাম হোসেন বলেন, ডাকাতি, ছিনতাই ও দস্যুতার অভিযোগে একাধিক মামলার আসামী ও আন্তঃজেলা ডাকাত দলের অন্যতম হোতা রাসেলকে গ্রেপ্তার করেছি। তার দলের অন্য সদস্যদেরকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত। পুলিশের কাছে কোন ধরণের অপরাধীর ছাড় নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here