Dhaka 1:10 pm, Tuesday, 28 May 2024
News Title :
কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা; প্রবাসে এক কক্ষে ১৩ দিন অনাহারে বন্দি ১২ যুবক নির্মাণের ৫ বছর পর আজ উদ্বোধন হচ্ছে সরাইল মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নাসিরনগরে দুর্নীতি বিরোধী রচনা ও বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত সরাইলে অজ্ঞাতনামা বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিশ্ব মেডিটেশন দিবস উদ্‌যাপন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর কলেজে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সরাইলে সরকারী স্কুলে দূর্ধর্ষ চুরি নৈশ প্রহরীর বিরূদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ সরাইলে নদীর দখল ছাড়বেন না আ’লীগ নেতা উচ্ছেদ ঠেকাতে সক্রিয় দালাল চক্র ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুর্নীতি বিরোধী রচনা ও বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে দুর্নীতি বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত

সরাইলে অগ্নিকান্ডে ১৫ দোকান পুড়ে ছাঁই দেড় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

সরাইলে অগ্নিকান্ডে ১৫ দোকান পুড়ে ছাঁই দেড় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পুঁড়ে ছাঁই হয়ে গেছে পুরো একটি মার্কেটের ১৫ দোকান। সর্বস্ব হারিয়ে পথে বসেছেন ব্যবসায়িরা। তাদের আর্তচিৎকারে ভারী হয়ে ওঠছে সেখানকার পরিবেশ। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩ টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে সরাইলের শাহবাজপুর দ্বিতীয় গেইট এলাকায় এই অগ্নিকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে। সরাইল ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস’লে পৌঁছে প্রাণপণ চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। ততক্ষণে মালামালসহ পুঁড়ে গেছে মার্কেটের ১৪-১৫ টি দোকান। ব্যবসায়িরা বলছেন এই অগ্নিকান্ডে তাদের ক্ষতির পরিমাণ দেড় কোটি টাকারও বেশী হবে।
ভুক্তভোগি ব্যবসায়ী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, অন্যান্য দিনের মত বৃহস্পতিবার রাত ১০/১১ টার পর ওই মার্কেটের সকল ব্যবসায়ি দোকানপাট তালা দিয়ে বাড়িতে চলে যান। দিবাগত রাত সাড়ে ৩ টার দিকে বিকট শব্দে আগুনের লেলিহান শিখা উপরের দিকে ওঠে। গভীর রাতে মহাসড়কসহ আশপাশের এলাকা ফর্সা হয়ে ওঠে। সড়কে চলাচলকারী যাত্রীরা ঘটনাটি দেখে দাঁড়িয়ে যান। তারা বিষয়টি স’ানীয় কয়েকজনকে জানান। তাদের আর্তচিৎকারে গ্রামের লোকজন জড়ো হয়। কিন্ত আগুন এত ভয়াবহ রূপ ধারণ করছিল, কেউ কাছে যেতে পারছিলেন না। দূর থেকে পানি আর বালি দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করেছেন। রাত ৪টার দিকে সরাইল ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত ষ্টেশন অফিসার রিয়াজ মোহাম্মদ ৯ সদস্যের টিম নিয়ে ঘটনাস’লে পৌঁছে ২ ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। কিন’ ততক্ষণে পুরো মার্কেট পুঁড়ে ছাঁই হয়ে গেছে। কয়েক ঘন্টার মধ্যে সর্বস্ব হারিয়ে নি:স্ব হয়ে গেছেন অনেক ব্যবসায়ি। তাদের মধ্যে এমনও ব্যবসায়ি আছেন যারা দোকানের দৈনিক আয় দিয়ে সংসারের আহার যোগাড় করতেন। মালামালসহ যাদের দোকান পুঁড়ে গেছে তারা হলেন- মন্টু মিয়া, মনির মিয়া, সীতারাম চৌধুরী, পরিমল দত্ত, লিটন, আলী আহাম্মদ, আরশ আলী, মনিষ নাগ, সন্তোষ চৌধুরী, রাকিব মিয়া, বাদল মিয়া, জ্যোতি শীল, আফসার মিয়া প্রমূখ। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত স্বর্ণের দোকানের মালিক মন্টু মিয়া, মনির মিয়া ও সীতারাম চৌধুরী বলেন, মার্কেটে স্বর্ণ, হার্ডওয়ার, মুদি, মোবাইল, সেলুন, টেইলার্স, কাপড়ের প্রায় ১৫ টি দোকানের সবগুলিই পুঁড়ে গেছে। কমপক্ষে দেড়-দুই কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। আমাদের ১৫ মালিককেই এখন পথে বসে যেতে হবে। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট নাকি অন্য কোন উৎস থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে তা নিশ্চিত বলতে পারছি না। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে গতকাল সকালে ঘটনাস’ল পরিদর্শন করেছেন সদ্য নির্বাচিত সরাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শের আলম মিয়া ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেজবা উল আলম ভূঁইয়া। ইউএনও বলেন, আগুনের সূত্রপাত বিদ্যুতের সর্ট সার্কিট থেকেই হতে পারে। ক্ষতিগ্রস্তরা আবেদন করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস’া গ্রহনের জন্য আমরা যথাযথ কর্তৃপক্ষ বরাবর প্রেরণ করে দিব।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

জনপ্রিয় খবর

কোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা; প্রবাসে এক কক্ষে ১৩ দিন অনাহারে বন্দি ১২ যুবক

fapjunk
© All rights reserved ©
Theme Developed BY XYZ IT SOLUTION

সরাইলে অগ্নিকান্ডে ১৫ দোকান পুড়ে ছাঁই দেড় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

Update Time : 09:31:42 pm, Friday, 10 May 2024

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পুঁড়ে ছাঁই হয়ে গেছে পুরো একটি মার্কেটের ১৫ দোকান। সর্বস্ব হারিয়ে পথে বসেছেন ব্যবসায়িরা। তাদের আর্তচিৎকারে ভারী হয়ে ওঠছে সেখানকার পরিবেশ। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩ টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে সরাইলের শাহবাজপুর দ্বিতীয় গেইট এলাকায় এই অগ্নিকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে। সরাইল ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস’লে পৌঁছে প্রাণপণ চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। ততক্ষণে মালামালসহ পুঁড়ে গেছে মার্কেটের ১৪-১৫ টি দোকান। ব্যবসায়িরা বলছেন এই অগ্নিকান্ডে তাদের ক্ষতির পরিমাণ দেড় কোটি টাকারও বেশী হবে।
ভুক্তভোগি ব্যবসায়ী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, অন্যান্য দিনের মত বৃহস্পতিবার রাত ১০/১১ টার পর ওই মার্কেটের সকল ব্যবসায়ি দোকানপাট তালা দিয়ে বাড়িতে চলে যান। দিবাগত রাত সাড়ে ৩ টার দিকে বিকট শব্দে আগুনের লেলিহান শিখা উপরের দিকে ওঠে। গভীর রাতে মহাসড়কসহ আশপাশের এলাকা ফর্সা হয়ে ওঠে। সড়কে চলাচলকারী যাত্রীরা ঘটনাটি দেখে দাঁড়িয়ে যান। তারা বিষয়টি স’ানীয় কয়েকজনকে জানান। তাদের আর্তচিৎকারে গ্রামের লোকজন জড়ো হয়। কিন্ত আগুন এত ভয়াবহ রূপ ধারণ করছিল, কেউ কাছে যেতে পারছিলেন না। দূর থেকে পানি আর বালি দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করেছেন। রাত ৪টার দিকে সরাইল ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত ষ্টেশন অফিসার রিয়াজ মোহাম্মদ ৯ সদস্যের টিম নিয়ে ঘটনাস’লে পৌঁছে ২ ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন। কিন’ ততক্ষণে পুরো মার্কেট পুঁড়ে ছাঁই হয়ে গেছে। কয়েক ঘন্টার মধ্যে সর্বস্ব হারিয়ে নি:স্ব হয়ে গেছেন অনেক ব্যবসায়ি। তাদের মধ্যে এমনও ব্যবসায়ি আছেন যারা দোকানের দৈনিক আয় দিয়ে সংসারের আহার যোগাড় করতেন। মালামালসহ যাদের দোকান পুঁড়ে গেছে তারা হলেন- মন্টু মিয়া, মনির মিয়া, সীতারাম চৌধুরী, পরিমল দত্ত, লিটন, আলী আহাম্মদ, আরশ আলী, মনিষ নাগ, সন্তোষ চৌধুরী, রাকিব মিয়া, বাদল মিয়া, জ্যোতি শীল, আফসার মিয়া প্রমূখ। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত স্বর্ণের দোকানের মালিক মন্টু মিয়া, মনির মিয়া ও সীতারাম চৌধুরী বলেন, মার্কেটে স্বর্ণ, হার্ডওয়ার, মুদি, মোবাইল, সেলুন, টেইলার্স, কাপড়ের প্রায় ১৫ টি দোকানের সবগুলিই পুঁড়ে গেছে। কমপক্ষে দেড়-দুই কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। আমাদের ১৫ মালিককেই এখন পথে বসে যেতে হবে। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট নাকি অন্য কোন উৎস থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে তা নিশ্চিত বলতে পারছি না। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে গতকাল সকালে ঘটনাস’ল পরিদর্শন করেছেন সদ্য নির্বাচিত সরাইল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শের আলম মিয়া ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেজবা উল আলম ভূঁইয়া। ইউএনও বলেন, আগুনের সূত্রপাত বিদ্যুতের সর্ট সার্কিট থেকেই হতে পারে। ক্ষতিগ্রস্তরা আবেদন করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস’া গ্রহনের জন্য আমরা যথাযথ কর্তৃপক্ষ বরাবর প্রেরণ করে দিব।