Dhaka 8:32 pm, Saturday, 25 May 2024
News Title :
নির্মাণের ৫ বছর পর আজ উদ্বোধন হচ্ছে সরাইল মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স নাসিরনগরে দুর্নীতি বিরোধী রচনা ও বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত সরাইলে অজ্ঞাতনামা বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিশ্ব মেডিটেশন দিবস উদ্‌যাপন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর কলেজে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সরাইলে সরকারী স্কুলে দূর্ধর্ষ চুরি নৈশ প্রহরীর বিরূদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ সরাইলে নদীর দখল ছাড়বেন না আ’লীগ নেতা উচ্ছেদ ঠেকাতে সক্রিয় দালাল চক্র ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুর্নীতি বিরোধী রচনা ও বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে দুর্নীতি বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ম্যারাথন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ১৪ ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত

  • Reporter Name
  • Update Time : 09:59:49 pm, Monday, 31 January 2022
  • 217 Time View

ষষ্ঠ ধাপে আজ সোমবার (৩১ জানুয়ারি) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর ও কসবা উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ১৩৩টি কেন্দ্রে চলে ভোটগ্রহণ। সরজমিনে পরিদর্শন করে ও ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায় এবারের নির্বাচন অনেক শান্তিপূর্ণ ও সূষ্ঠ হয়েছে। তারা তাদের পছন্দমত পার্থীকে ভোট দিতে পেরেছেন বলে সন্তুষ প্রকাশ করেন। জেলা নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, নির্বাচনে নবীনগর উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের মধ্যে ৪টিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী এবং বাকি ৩টিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। কসবায় ৭ ইউনিয়নে এবার কোনো প্রার্থীকেই দলীয় প্রতীক দেওয়া হয়নি। ফলে তারা সবাই স্বতন্ত্র প্রার্থী। ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী নবীনগর উপজেলার নাটঘর ইউনিয়ন পরিষদে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আক্তারুজ্জামান মোটরসাইকেল প্রতীকে ৫৫০৫ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাইফুল আলম পেয়েছেন ৫০৪১ ভোট। শিবপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থী এম. আর. মজিব আনারস প্রতীকে ৬৮৮১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেনন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শাহীন সরকার পেয়েছেন ৪২৪১ ভোট। বিটঘর ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মেহেদী জাফর ৬৭২৮ ভোট পেয়েছে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. কিবরিয়া ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ৩৮৯২ ভোট। কাইতলা দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শওকত আলী ২৫৮১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সৈয়দ আবু সালেহ মোটারসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ১৫৪২ ভোট। বড়াইল ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাকির হোসেন ৭১০৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান মোটরসাইকেল প্রতীকে ১৭৮২ ভোট। কৃষ্ণনগর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আমজাদ হোসেন চশমা প্রতীকে ৬৭৭৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাশুকুর রহমান পেয়েছেন ৪৩৫০ ভোট। বিদ্যাকূট ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাকারুল হক ৫৬৯৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী এনামুল হক আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৪৯৫৫ ভোট। কসবা উপজেলার মেহারী ইউনিয়নে ৫৬০৫ ভোট পেয়ে মোশাররফ হোসেন, বাদৈর ইউনিয়নে ৪৭৭৪ ভোট পেয়ে শিপন আহমেদ ভূঁইয়া, গোপীনাথপুরে ৬০৬৮ ভোট পেয়ে মিজানুর রহমান, বানাউটিতে ৬৬৮২ ভোট পেয়ে বেদন খান, কায়েমপুরে ১০৮২৫ ভোট পেয়ে ইকতিয়ার আলম রনি, বায়েকে ৬৩৯৭ ভোট পেয়ে বিল্লাল হোসেন এবং কসবা পশ্চিমে ৩৮৯৭ ভোট পেয়ে মো. মানিক মিয়া নির্বাচিত হয়েছেন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

জনপ্রিয় খবর

নির্মাণের ৫ বছর পর আজ উদ্বোধন হচ্ছে সরাইল মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স

fapjunk
© All rights reserved ©
Theme Developed BY XYZ IT SOLUTION

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ১৪ ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত

Update Time : 09:59:49 pm, Monday, 31 January 2022

ষষ্ঠ ধাপে আজ সোমবার (৩১ জানুয়ারি) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর ও কসবা উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ১৩৩টি কেন্দ্রে চলে ভোটগ্রহণ। সরজমিনে পরিদর্শন করে ও ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায় এবারের নির্বাচন অনেক শান্তিপূর্ণ ও সূষ্ঠ হয়েছে। তারা তাদের পছন্দমত পার্থীকে ভোট দিতে পেরেছেন বলে সন্তুষ প্রকাশ করেন। জেলা নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, নির্বাচনে নবীনগর উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের মধ্যে ৪টিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী এবং বাকি ৩টিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। কসবায় ৭ ইউনিয়নে এবার কোনো প্রার্থীকেই দলীয় প্রতীক দেওয়া হয়নি। ফলে তারা সবাই স্বতন্ত্র প্রার্থী। ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী নবীনগর উপজেলার নাটঘর ইউনিয়ন পরিষদে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আক্তারুজ্জামান মোটরসাইকেল প্রতীকে ৫৫০৫ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাইফুল আলম পেয়েছেন ৫০৪১ ভোট। শিবপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থী এম. আর. মজিব আনারস প্রতীকে ৬৮৮১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেনন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শাহীন সরকার পেয়েছেন ৪২৪১ ভোট। বিটঘর ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মেহেদী জাফর ৬৭২৮ ভোট পেয়েছে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. কিবরিয়া ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ৩৮৯২ ভোট। কাইতলা দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শওকত আলী ২৫৮১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সৈয়দ আবু সালেহ মোটারসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ১৫৪২ ভোট। বড়াইল ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাকির হোসেন ৭১০৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান মোটরসাইকেল প্রতীকে ১৭৮২ ভোট। কৃষ্ণনগর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আমজাদ হোসেন চশমা প্রতীকে ৬৭৭৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাশুকুর রহমান পেয়েছেন ৪৩৫০ ভোট। বিদ্যাকূট ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাকারুল হক ৫৬৯৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী এনামুল হক আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৪৯৫৫ ভোট। কসবা উপজেলার মেহারী ইউনিয়নে ৫৬০৫ ভোট পেয়ে মোশাররফ হোসেন, বাদৈর ইউনিয়নে ৪৭৭৪ ভোট পেয়ে শিপন আহমেদ ভূঁইয়া, গোপীনাথপুরে ৬০৬৮ ভোট পেয়ে মিজানুর রহমান, বানাউটিতে ৬৬৮২ ভোট পেয়ে বেদন খান, কায়েমপুরে ১০৮২৫ ভোট পেয়ে ইকতিয়ার আলম রনি, বায়েকে ৬৩৯৭ ভোট পেয়ে বিল্লাল হোসেন এবং কসবা পশ্চিমে ৩৮৯৭ ভোট পেয়ে মো. মানিক মিয়া নির্বাচিত হয়েছেন।