দেওয়ান মাহবুব আলীর স্মরণ সভায় বক্তারা-‘এই বীর সেনানীকে স্বাধীনতা পুরস্কার দেয়া হউক’

0
98

যুক্তফ্রন্ট থেকে নির্বাচিত সাবেক গণপরিষদ সদস্য (এমএলএ) দেওয়ান মাহবুব আলী কুতুব মিয়ার ৫১তম শাহাদাৎবার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে দেওয়ান মাহবুব আলী স্মৃতি পরিষদের আয়োজনে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় সিরাজুল ইসলাম অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় স্মরণ সভা। সংগঠনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট আব্দুর রাশেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা। সরাইল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মাহবুব খান বাবুলের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান রওশন আরা লাকী। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুর, সরাইল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মৃধা আহমাদুল কামাল, সাবেক অধ্যক্ষ বায়তুল হোসেন খন্দকার, আ’লীগ নেতা শহিদ বুদ্ধিজীবীর সন্তান এডভোকেট সৈয়দ তানবির হোসেন কাউসার, সাবেক কমান্ডার মো. ইসমত আলী, ত্রিতাল সংগীত নিকেতনের অধ্যক্ষ সঞ্জীব কুমার দেবনাথ, সরাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. আইয়ুব খান, আ’লীগ নেতা মো. মোস্তাফিজুর রহমান, মো. উমর আলী, কমিউনিষ্ট পার্টির সভাপতি দেবদাস সিংহ রায়, সূর্যশপথ পত্রিকার সম্পাদক আবুল কাশেম তালুকদার, প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ কামরূজ্জামান ইউসুফ, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক তৌফিক আহমেদ তফছির, উদীচীর সভাপতি মোজাম্মেল পাঠান, সম্পাদক সুমন পারভেজ, জাপা নেতা এমদাদুল হক ছালেক, উপলদ্ধির নির্বাহী পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিন ও ন্যাপ নেতা আব্দুল জব্বার প্রমূখ। বক্তারা বলেন, দেওয়ান মাহবুব আলী কুতুব মিয়া। শুধু একটি নাম নয়। একটি ইতিহাস। সরাইলের দেওয়ান পরিবারে জন্ম নেয়া এক দেশ প্রেমিক রাজনীতিবিদের নাম। সাহস, সততা, নিষ্ঠা, প্রজ্ঞা, দূরদর্শিতা ও স্বীয় কর্মকান্ড দ্বারা শুধু জাতীয় পর্যায়ে নয়। তিনি নিজেকে তুলে ধরেছিলেন বিশ্ব পরিমন্ডলে। বিশিষ্ট আইনজীবী, ন্যাপের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহসভাপতি, আদমজি জুটমিল শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ৫৪ সালে যুক্তফ্রন্টের নির্বাচিত প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য মাহবুব আলী ছিলেন গরীব মেহনতি শ্রমজীবি মানুষের নেতা। ১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দে মহান মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে বিশ্ব জনমত গড়ে তুলার লক্ষ্যে হাঙ্গেরীর বুদাপেষ্টে অনুষ্ঠিত শান্তি সম্মেলন থেকে ভারত ফেরার পথে দিল্লী বিমানবন্দরে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এই বীর সেনানীকে রাষ্ট্রীয় ভাবে স্বাধীনতা পুরস্কার দেয়া হউক। রফিক উদ্দিন ঠাকুর আগামী আগষ্ট মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই কুতুব মিয়ার নামে একটি ম্যুরাল নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন। সরাইলের গর্ব ও অহঙ্কার বিপ্লবী এই নেতার বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক কর্মকান্ড পরবর্তী প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেয়া, উদ্ভুদ্ধ করা ও জাতীর কাছে উনাকে অমর করে রাখাই স্মরণ সভার লক্ষ্য।

মাহবুব খান বাবুল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here