বর্ষা ঋতু অবচেতনমনে ও স্বত:স্ফূর্তভাবে বাঙালিদের মনে প্রভাব বিস্তার করে
—————– মোঃ জয়দুল হোসেন

রুপময় বাংলাদেশের অন্যতম ঋতু বর্ষা। বর্ষাকে বলা হয় ঋতুর রানী। বাংলাদেশের প্রকৃতি, জীবন ব্যবস্থা, সমাজ-সংস্কৃতি ও সাহিত্যে বর্ষার যথেষ্ট প্রভাব বিদ্যমান। বাংলা আষাঢ় ও শ্রাবণ এই দুই মাস বর্ষাকাল। ১ আষাঢ় বর্ষা ঋতুর প্রথমদিন। এ উপলক্ষ্যে প্রথমবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় উদযাপন করা হয় বর্ষা বিষয়ক সাহিত্য আড্ডা। গল্প-কবিতা, গান ও স্মৃতিকথায় এই আড্ডাটি মাতিয়ে রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার স্থানীয় সাহিত্য-সংস্কৃতিপ্রেমীগণ। গত বুধবার বিকেলে বৃষ্টিস্নাত সন্ধ্যায় স্থানীয় আনন্দময়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে উক্ত সাহিত্য আড্ডার আয়োজন করে কবি ও কবিতা সংগঠন কবির কলম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

কবির কলমের অন্যতম উপদেষ্টা, রম্য লেখক ও উপন্যাসিক পরিমল ভৌমিক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সাহিত্য আড্ডায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাহিত্য একাডেমির সভাপতি, বিশিষ্ট কবি ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষক মোঃ জয়দুল হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চেতনায় স্বদেশ গণগ্রন্থাগার এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কবি ও কথাসাহিত্যিক মোঃ আমির হোসেন, বিশিষ্ট কবি ও গীতিকার দেওয়ান দিদারুল আলম মারুফ। আনন্দময়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আবু জামাল। সভায় অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাহিত্য একাডেমির পরিচালক মণ্ডলীর সদস্য কবি ও কথাসাহিত্যিক মানিক রতন শর্মা, তিতাস সাহিত্য ও সংস্কৃতি পরিষদের উপদেষ্টা, কবি ও গীতিকার মোঃ আব্দুর রহিম, জেলা পাবলিক লাইব্রেরির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মমিনুল আলম বাবু, আনন্দময়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ মোবারক হোসেন, ফিরোজ মিয়া সরকারি কলেজের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক কবি এম এ হানিফ, পৌরসভার বাজার পরিদর্শক কবি এডভোকেট মোঃ হুমায়ুন কবির, মাসিক তিতাস বার্তার উপদেষ্টা সম্পাদক আফজালুর রহমান রিপন, বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ভ্রাম্যমান লাইব্রেরি ইউনিট, ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর লাইব্রেরি কর্মকর্তা মোঃ আনিস ভূঁইয়া।

কবির কলমের সভাপতি কবি মনিরুল ইসলাম শ্রাবণ এর সঞ্চালনায় উক্ত সাহিত্য আড্ডায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন কবির কলমের সাবেক সভাপতি কবি সুমন সাহা। সভায় বর্ষা নিয়ে বিশেষ নিবন্ধ পাঠ কররেন সহ-সভাপতি কবি সিরাজুম মুনিরা শশী। স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন কবির কলমের সিনিয়র সহ-সভাপতি কবি হুমায়ুন কবির, সহ-সভাপতি কবি ফাহিম মুনতাসির, সদস্য কবি গোলাম মোহাম্মদ মোস্তফা, সাহিত্য একাডেমির সদস্য কবি রিপন দেবনাথ ও কবি কহিনুর বেগম। সঙ্গীত পরিবেশন করেন কবি ও গীতিকার মোঃ আব্দুর রহিম, কবি ওবায়দুল হক মুন্সী ও উক্তি সাহা।

সভায় প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্য বলেন, সকল ঋতুই মানুষের মনে কোন না কোন ভাবে প্রভাব বিস্তার করে থাকে। কিন’ বর্ষা ঋতু অবচেতনমনে, স্বাভাবিকভাবে ও স্বত:স্ফূর্তভাবে মানুষের মনে, বিশেষ করে বাঙালিদের মনে প্রভাব বিস্তার করে। তিনি বলেন যাদের মধ্যে বর্ষার প্রভাব বিদ্যমান তাদের মধ্যেই কবিত্ব ও কবিতা আছে। সেই প্রভাবের কারনেই কবির কলম বর্ষাবরণের আয়োজন করেছে এবং আমার এখানে উপসি’ত হয়েছি। তিনি আরো বলেন যাদের মধ্যে বর্ষার প্রভাব থাকে না তাদের মধ্যে কবিত্ব ও কবিতাও থাকে না। তিনি বাঙালি জীবনে ও সাহিত্যে বর্ষার প্রভাব ও বর্ষাকালে নিজের নানান স্মৃতিচারণ করে বর্ষাবরণ আয়োজনের করার জন্য কবির কলমকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

সাহিত্য আড্ডার শুরুতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিশিষ্ট সাংবাদিক বাদল গুহ এবং বিশিষ্ট নারীনেত্রী ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নন্দিতা গুহ এর একমাত্র পুত্র, সঙ্গীত শিল্পী পার্থ সারথি গুহ এর অকাল মৃত্যুতে দাড়িয়ে শোক জানানো হয়। এবং অনুষ্ঠান শেষে কবির কলম এর সাবেক সভাপতি সুমন সাহা এর জন্মদিন উপলক্ষ্যে তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here