বঙ্গবন্ধুর খুনিরা বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারকে খুণ করে বাংলাদেশকে খুণ করতে চেয়েছিল। তাদের আকাঙ্খা বাস্তবায়িত হতে পারেনি। ২১ বছর আমাদেরকে অপেক্ষা করতে হয় বঙ্গবন্ধু পরিবারের এক সদস্যের উপর।বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর রাজাকার,আলবদর,আলসামস্‌রা দেশ চালাতো। তাদের গাড়ীতে জাতীয় পতাকা ছিল। এরা ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে ইউরোপে যেতো। কে কতো দেবে সাহায্য, ঋন দেবে এর উপর নির্ভর করতো বাংলাদেশের উন্নয়নের বাজেট ঘোষনা। আজ শুক্রবার দুপুরে কসবা টি.আলী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে কসবা পৌর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল অধিবেশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষনে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এম.পি এসব কথা বলেন। আইনমন্ত্রী আরো বলেন, শেখ হাসিনা ক্ষমতা থাকায় দেশের মর্যাদা বেড়েছে।জনগন উন্নয়ন দেখছে। আগামী জুন মাসে পদ্মা সেতু দিয়ে আমরা দক্ষিন বাংলায় যাবো। ২০২১ সালের আগেই বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশ হয়েছে। পৌর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুল ইসলাম আলমগীর’র সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন; জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল হান্নান রতন,কসবা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এডভোকেট রাশেদুল কাউসার ভুইয়া জীবন,আওয়ামীলীগ কসবা উপজেলা শাখার যুগ্ন আহবায়ক কসবা পৌর মেয়র এম.জি হাক্কানী,যুগ্ন আহবায়ক কাজী আজহারুল ইসলাম,সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন ভুইয়া বকুল,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মনির হোসেন,সাবেক মেয়র এমরান উদ্দিন জুয়েল,উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আব্দুল আজিজ,ছাত্রলীগ আহবায়ক আফজাল হোসেন রিমন। এসময় উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপসি’ত ছিলেন। সম্মেলনে সভাপতি পদে ৪ জন ও সাধারন সম্পাদক পদে ১০ জন প্রার্থী ছিলেন। তবে সম্মেলনে নতুন কমিটি ঘোষনা দেয়া হয়নি। আইনমন্ত্রী এককভাবে নতুন কমিটি আগামী ৭২ ঘন্টার মধ্যে প্রকাশ করবেন বলে ঘোষনা দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here