ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আলোচিত চিকিৎসক ডিউক চৌধুরীর বিরুদ্ধে এবার মামলা করেন এক রাজমিস্ত্রি।

0
55


ভুল চিকিৎসায়’ এক স্কুলশিক্ষিকার মৃত্যুর অভিযোগে মামলা দায়েরের পর এবার এক রাজমিস্ত্রির সর্দার মামলা দায়ের করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আলোচিত চিকিৎসক ডিউক চৌধুরীর বিরুদ্ধে। পাওনা টাকা না পেয়ে সোমবার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলাটি দায়ের করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নাচোল উপজেলার হামিদপুর গ্রামের মো. তরিকুল ইসলাম নামে ওই রাজমিস্ত্রির সর্দার। আদালত মামলাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সদর মডেল থানা পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন।
জেলা শহরের মুন্সেফপাড়া এলাকার ডা. ডিউক চৌধুরীর মালিকানাধীন খ্রিস্টিয়ান মেমোরিয়াল হাসপাতাল ভবনের রাজমিস্ত্রির সর্দার তরিকুল ইসলামের করা মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ৭ মে ডিউক চৌধুরীর সঙ্গে তার হাসপাতাল ভবন নির্মাণের চুক্তি হয়। আন্ডার গ্রাউন্ডের যাবতীয় কাজসহ গ্রাউন্ড ফ্লোর প্রতি বর্গফুট ২৮০ টাকা এবং বাকি প্রতিছাদ ১৭৫ টাকা বর্গফুট হারে কাজ করার চুক্তি হয়। এরপর ওই বছরের ৫ জুলাই থেকে ২০১৮ সালের ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ১১ তলা বিশিষ্ট ভবন নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়। এতে তরিকুল ইসলাম এক কোটি টাকা বিল পাওনা হন। এর মধ্যে ডিউক ৯২ লাখ ৫০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন। বাকি সাড়ে ৭ লাখ টাকা না দিয়ে তাকে ঘুরাতে থাকেন। মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী শরীফ উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, আদালত মামলাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সদর মডেল থানা পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন। মামলার ব্যাপারে জানতে চাইলে ডা. ডিউক চৌধুরী বলেন, কীভাবে চুক্তি হয়েছিল সেটা খাতা-কলমে আছে। আমাদের ম্যানেজারের কাছে সকল কাগজপত্র আছে। আপনারা দেখতে চাইলে ম্যানেজারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।
এর আগে ভুল চিকিৎসায় জেলা শহরের মুন্সেফপাড়া এলাকার ক্রিসেন্ট কিন্ডার গার্টেনের শিক্ষিকা নওশিন আহমেদ দিয়ার মৃত্যুর ঘটনায় তার বাবা শিহাব আহমেদ গত ১৩ নভেম্বর ডা. ডিউক চৌধুরীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন। ওই মামলায় ডা. ডিউক চৌধুরীর মালিকানাধীন খ্রিস্টিয়ান মেমোরিয়াল হাসপাতালের দুই চিকিৎসক অরুনেশ্বর পাল অভি ও মো. শাহাদাত হোসেন রাসেলকেও আসামি করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে