আইনমন্ত্রীর প্রতি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাংবাদিকদের আহ্বান

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ও পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা কাজলকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশের জেরে দৈনিক মানবজমিনের নিজস্ব প্রতিবেদক জাবেদ রহিম বিজনকে হত্যার হুমকি দেয়ার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সামনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

এ কর্মসূচি থেকে মেয়র কাজল ও তার সহযোগীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় না দেয়ার জন্য আইনমন্ত্রী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা ও আখাউড়া) আসনের সংসদ সদস্য আনিসুল হকের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সাংবাদিকরা।

টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মনজুরুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি খ.আ.ম রশিদুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আরজু, সিনিয়র সহ-সভাপতি আলামিন শাহীন, টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন জামি, সিনিয়র সাংবাদিক আব্দুন নূর, আ.ফ.ম কাউছার এমরান ও সৈয়দ মোহাম্মদ আকরাম।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, মেয়র কাজলের দুর্নীতি-অনিয়ম নিয়ে সংবাদ প্রকাশের কারণে সাংবাদিক বিজনকে হত্যার হুমকি দেয়ার ১১ দিন পেরিয়ে গেছে। অথচ হুমকিদাতাদের এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করা হয়নি। সাংবাদিক বিজনকে হত্যার হুমকি পুরো সাংবাদিক সমাজের জন্য উদ্বেগজনক। অবিলম্বে হুমকিদাতাদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের প্রতি আমাদের আহ্বান থাকবে কাজল ও তার সহযোগীদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেবেন না। কারণ মন্ত্রীর কাঁধে ভর করে কাজল ও তার সহযোগীরা এলাকায় নানা অপকর্ম করে যাচ্ছে।

মানববন্ধন শেষে প্রতিবাদ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিল থেকে কাজল ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন সাংবাদিকরা। মিছিলটি প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় প্রেস ক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়।

এর আগে গত ২৫ অক্টোবর ‘আখাউড়ায় খলিফা সাম্রাজ্য’ শিরোনামে দৈনিক মানবজমিন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হয়। ওই সংবাদে মেয়র ও যুবলীগ নেতা তাকজিল খলিফা কাজলের নানা ‘অপকর্ম’ তুলে ধরা হয়। সংবাদে কাজল ছাড়াও তার ভাই-ভাতিজাদের ‘অপকর্মের’ কথাও উঠে আসে। সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিক বিজনকে হাত-পা কেটে হত্যার হুমকি দেয়া হয়।

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ রেখে পালিয়েছে স্বামী

Wed Nov 6 , 2019
২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে দীপা রায় (২৬) নামের এক গৃহবধূর মরদেহ রেখে পালিয়েছে স্বামী। বুধবার দুপুরে এই ঘটনা […]

শিরোনাম