0

বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ। করোনা মহামারির এই সময়ে অভিনেতা সালমান খানের প্যানভেলের খামারবাড়িতে ছিলেন। কিন্তু এখন সেখান থেকে এক বন্ধুর বাড়িতে উঠেছেন তিনি। এই অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠ এক সূত্র পিংকভিলা ডটকমকে বলেন, ‘জ্যাকলিনের সঙ্গে তার খুবই ঘনিষ্ঠ একজন বন্ধু কথা হয়, লকডাউনের পুরো সময়টাতে সে মুম্বাইয়ে একা ছিল। তারা খুবই ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং কথোপকথনের একপর্যায়ে জ্যাকলিন বুঝতে পারেন তার বন্ধু খুবই মানসিক চাপে রয়েছেন।

বিষয়টি বুঝতে পেরেই তিনি প্যানভেল থেকে মুম্বাইয়ে বন্ধুর সঙ্গে থাকতে রওনা হন। বন্ধুর এই দুঃসময়ে তার সঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জ্যাকলিন।’ গত মার্চের মাঝামাঝিতে ভারতে লকডাউন ঘোষণার পর থেকেই সালমানের খামারবাড়িতে ছিলেন জ্যাকলিন। এ ছাড়া সালমানের পরিবারের সদস্য, এই অভিনেতার কথিত প্রেমিকা ইউলিয়া ভান্তুর ও অভিনেত্রী ওয়ালুসা ডিসুজাও ছিলেন। খামারবাড়িতে তার দৈনন্দিন জীবন নিয়ে একটি ভিডিও তৈরি করেছিলেন জ্যাকলিন। এতে দেখা যায়, খামার বাড়ির মনোরম দৃশ্য দেখার মধ্য দিয়ে দিন শুরু করতেন তিনি। নারকেল গাছে উঠতে শেখা, ঘোড়ার পিঠে চড়া, এমনকি সেখানে থাকা গরু, ছাগলও স্থান পেয়েছে তার এই ভিডিওতে। শুধু তাই নয়, লকডাউনের মধ্যেই সালমান খানের সঙ্গে ‘তেরে বিনা’ গানের ভিডিওর শুটিং করেন জ্যাকলিন। মিউজিক ভিডিওটি সালমানের খামারবাড়িতেই শুটিং হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে