আপনি একজন ক্ষমতা-পিপাসু রাজনীতিবিদ ”নুসরত”

0

শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেনে পরিযায়ী শ্রমিকদের মৃত্যুর ঘটনা ‘ছোট এবং বিক্ষিপ্ত’। এর জন্য ভারতীয় রেলকে দায়ী করা যায় না। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করলেন তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান।

শুক্রবার টুইটারে দিলীপকে কটাক্ষ করে নুসরত লিখলেন, ”ধন্যবাদ! এটাই আপনার আসল রঙ। মানুষ দেখুক, আপনি একজন ক্ষমতা-পিপাসু রাজনীতিবিদ, যাঁর সাধারণ মানুষকে সাহায্য করার কোনও মানসিকতাই নেই।” অত্যধিক গরম, খাবার ও জলের অভাব সহ একাধিক কারণে গত সোমবার থেকে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনের মধ্যেই এক শিশু সহ মোট নয়জন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। সেই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘কিছু দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা ঘটেছে।

তবে এর কারণে রেলকে দোষী করা ঠিক নয়। রেলের পক্ষ থেকে যথাসাধ্য চেষ্টা করা হচ্ছে। কিছু মানুষ মারা গিয়েছেন। এগুলি ছোট, ব্যতিক্রমী ঘটনা।’ সোমবার মুজাফ্ফরপুরে ট্রেনের মধ্যে ২৩ বছরের এক মহিলা পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু নিয়ে হইচই পরে যায়।

রেল মন্ত্রকের তরফ থেকে জানান হয়েছে, ট্রেনের মধ্যেই মহিলা অসুস্থ হয়ে পড়েন। ট্রেনেতেই তাঁর মৃত্যু হয়। তারপর পুরো পরিবারকে মুজাফ্ফরপুর স্টেশনে নেমে যেতে বলা হয়। মৃত মহিলার দেহ পড়েছিল মুজাফফরপুর প্ল্যাটফর্মে। সেখানেই তাঁর ছোট্ট শিশু বারবার তাঁকে জাগানোর চেষ্টা করছিল। খেলার ছলে টেনে নিচ্ছিল তার মায়ের কাপড়।

কিন্তু কোনও সাড়া না পেয়ে আবারও একই কাজ করে চলেছিল। কারণ শিশু মন তখনও বুঝতে পারেনি তার মা আর জীবিত নেই। মৃত মায়ের সঙ্গেই খেলছিল সে। এই ঘটনাটিকেও ‘ছোট ঘটনা’ বলে মন্তব্য করে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

তৃণমূল নেতা সৌগত রায় বলেছেন, ‘‘এই পুরো পরিযায়ী ইস্যুটাই কোভিড সঙ্কট ও লকডাউন সামলাতে কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যর্থতার জন্য ঘটেছে। বহু মানুষ মারা যাচ্ছে। আর বিজেপি নেতারা এমন‌ ঔদ্ধত্বপূর্ণ আচরণ করছেন যেন কিছুই হয়নি। অন্যের দিকে আঙুল তোলার আগে দিলীপ ঘোষের আরও সংযত হয়ে কথা বলা উচিত।” সিপিআই(এম) পলিট ব্যুরোর সদস্য মহম্মদ সেলিমও সৌগত রায়ের সুরেই দিলীপ ঘোষের নিন্দা করেছেন। তিনি বলেন, ‘‘পরিযায়ী শ্রমিক ইস্যু প্রমাণ করে দিয়েছে মানুষের প্রাণ রক্ষা করতে ব্যর্থ মোদি সরকার। কেন্দ্রীয় সরকারের হয়ে এই সঙ্কটকে সামলাতে ব্যর্থ হওয়ার জন্য লজ্জিত হওয়া উচিত বিজেপি নেতাদের।” কলকাতা ২৪

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে