সোমবার , ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ,৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

স্টেশন থেকে আহত এক তরুণকে উদ্ধার করে পুলিশ হাসপাতালে আনলে পুলিশকে ছুরি ধরে পালিয়ে যায়।

 স্টেশন থেকে আহত এক তরুণকে উদ্ধার করে পুলিশ হাসপাতালে আনলে পুলিশকে ছুরি ধরে পালিয়ে যায়।

ডিঃব্রাঃ ডেস্কঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনে রক্তাক্ত অবস্থায় রুবেল (২২) নামে এক মাদকাসক্ত যুবককে উদ্ধার করে পুলিশ। দায়িত্ব নিয়ে পুলিশ তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে আনে। একপর্যায়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে পুলিশকে ছুরি ধরে পালিয়ে যায়। বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে এই ঘটনা ঘটে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডের স্টাফ ও উপস্থিত থাকা স্বজনরা জানান, রাত ৯টার দিকে দুইজন পুলিশ সদস্য এক তরুণকে ওয়ার্ডে নিয়ে আসে। তরুণটি রক্তাক্ত ছিল। ভর্তির কাগজ ওয়ার্ডে জমা দেওয়ার আগে তরুণটি একটি ছুরি নিয়ে পুলিশের উপর হামলা করতে যায়।

পুলিশ সদস্যটি প্রাণে বেঁচে ওয়ার্ডের বাইরে গিয়ে কলাক্সিবল গেইট লাগিয়ে ফেলে। এ সময় ওই তরুণ সার্জারি ওয়ার্ডের ভেতরে থাকা অপর পুলিশ সদস্যকে ছুরি ধরে মারধর করে। এ অবস্থায় ভর্তি থাকা রোগী ও তাদের স্বজনরা ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন। পরে আরও রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এক সদস্য আসলে গেইটের বাইরে থাকা পুলিশ সদস্যটি গেইট খুলে ওয়ার্ডের ভেতরে আসার সুযোগে সেই তরুণ পালিয়ে যায়।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে ফাঁড়ির এক তরুণকে নিয়ে আসে। রেজিস্ট্রারে তার নাম রুবেল (২২), বাড়ি সিলেটের সদরের দেলোয়ারের ছেলে উল্লেখ্য করে লিপিবদ্ধ করে।

এই বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক রোমান খান বলেন, রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় একটি ছেলেকে আহতবস্থায় দেখে পুলিশ। ছেলেটি ভবঘুরে ও মাদকাসক্ত ছিল। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। সেখান থেকে পালিয়ে যায়। ছেলেটিকে খোঁজ করে আর পাওয়া যায়নি।

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *