মঙ্গলবার , ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ,৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য দৃষ্টান্ত

 সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য দৃষ্টান্ত

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দেয়া হুইল চেয়ার পেয়ে মুসলিম পরিবারের প্রতিবন্ধী লায়লার মুখে হাসির ঝিলিক

আল আমীন শাহীন : জন্ম থেকে প্রতিবন্ধী লায়লা। হাটা চলার সামর্থ নেই। পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে বাবা। দরিদ্র পরিবারের মেয়ে লায়লাকে নিয়ে বহু কষ্টে দিনাতিপাত করে তার মা। ইসলাম ধর্মাবলম্বী শারিরীক প্রতিবন্ধী ১২ বছরের এই লায়লার মুখে হাসি ফুটালো সনাতনধর্মাবলম্বী কানাই সাহা। শারদীয় দূর্গোৎসবের বিজয়া দশমীর দিনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দক্ষিণ কালিবাড়ি পুজাামন্ডপে লায়লাকে প্রদান করা হয় একটি হুইল চেয়ার।

চেয়ার প্রদান উপলক্ষে এই আয়োজনে দক্ষিণ কালিবাড়ি পূজা কমিটির সভাপতি রঞ্জন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অতিথি ছিলেন নতুন মাত্রার সম্পাদক,ব্রাহ্মণবাড়িয়া শিল্পী সংসদের সভাপতি আল আমীন শাহীন। প্রতিবন্ধী বান্ধব ব্যক্ত্বিত্ব শ্যামল সাহার ব্যবস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন দক্ষিণ কালী বাড়ি পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রাকেশ বণিক, প্রশান্ত চক্রবর্তী,সাংস্কৃতিক সংগঠক বিশ্বনাথ সাহা, কানাই সাহা প্রমুখ।

উল্লেখ্য শহরের কালী মোড় সাহা পরিবারের শ্যামল সাহার এক সন্তান প্রতিবন্ধী। এই সন্তানকে কি তার বাস্তব উপলব্ধিতে তিনি প্রতিবন্ধীদের সেবায় নিবেদিত। শ্যামল সাহার প্রেরণায় দক্ষিণ কালী বাড়ি পূজা কমিটি সহ সাহা পরিবারের সদস্যরা প্রতিবন্ধীদের কল্যাণে মানবিক নানামুখী সহায়তা অব্যাহত রখেছে। এবার করোনা কালীন সময়ে প্রায় শতাধিক প্রতিবন্ধী পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেন সাহা পরিবার।

এদিকে হুইল চেয়ার পেয়ে দারুণ খুশী লায়লার মা। তিনি জানান,তাদের বাড়ি সরাইল উপজেলার চুন্টা গ্রামে। লায়লার পিতা তাদের ফেলে সংসার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এখন শহরের ভাদুঘর এলাকায় প্রতিবন্ধী মেয়েকে নিয়ে অতি কষ্টে দিনযাপন করছেন। পূজা উপলক্ষে এমন সহায়তা পাবেন তা তিনি স্বপ্নেও ভাবেন নি। এক পর্যায়ে তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন এবং এই সহায়তায় সম্‌পৃক্তদের জন্য দোয়া করেন।

চলার শক্তি হারা লায়লা হাসিমুখে হুইল চেয়ারে বসে সবার মুখের দিকে তাকাচ্ছিল । দক্ষিণ কারীবাড়ির পূজা মন্ডপের ঝলমলে আলোকচ্ছটার সাথে তার মুখের তৃপ্তির হাসি ব্যতিক্রমী ঝলক ছড়িয়েছে।

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *