বৃহস্পতিবার , ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ,১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ভাদাইমা’ বলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ: একই পরিবারের ৪জন আহত

 ভাদাইমা’ বলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ: একই পরিবারের ৪জন আহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলায় ‘ভাদাইমা’ বলাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে একই পরিবারের ৪জন আহত হয়েছে।

রোববার (২০ জুন) রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার মজলিশপুর ইউনিয়নের ছোট-বাকাইল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, ছোট-বাকাইল গ্রামের দাস পাড়ার মৃত সূর্য মোহন দাসের ছেলে সোনা মোহন দাস(৭০), তার স্ত্রী কল্পনা রানী দাস(৬০) এবং দুই-পুত্র সুভাসচন্দ্র দাস(২০) ও অপূর্ব দাস(১৫)।

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, রোববার রাতে সোনা মোহন দাসকে ছোট-বাকাইল বাজারে স্থানীয় সাম লাল দাসের ছেলে বতুশ দাস “ভাদাইমার ঘরের ভাদাইমা তোরে জুতা দিয়ে বাইরামু” এ কথা বলেন। তার বাবা সোনা মোহন দাসকে কেন একথা বললো তা সুভাসচন্দ্র দাস গিয়ে বতুশ দাস জিগ্যেস করেন। পরে এব্যাপার নিয়ে সুভাসচন্দ্র দাসের সাথে বতুশ দাসের কথা-কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে বতুশ দাস, বিশ্ব ও তন্ময়সহ আরও ৪-৫ সাথে নিয়ে সুভাসচন্দ্র দাসকে মারধোর শুরু করেন। তাকে বাঁচাতে গিয়ে সোনা মোহন দাস, তার ছোট ছেলে অপূর্ব দাস ও তার স্ত্রী কল্পনা রানী আহত হয়।

হামলার ব্যাপারে জানতে চাইলে আহত সোনা মোহন দাস জানান, বতুশ দাস ও বিশ্ব দাস এলাকায় মাদকসেবি হিসেবে পরিচিত। তারা দু’জন সারাদিন নেশা নিয়ে মগ্ন থাকেন। তারা কোন অন্যায় করলে তার প্রতিবাদ করা যায় না। তারা এর আগে অনেকবার আমাদেরকে ‘ভাদাইমা’ বলছে কিন্তু তার বিচার পাইনি।

সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি এমরানুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তুচ্ছ বিষয় নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত চলছে। অভিযোগ সাপেক্ষে আহতদের আইনী সহযোগিতা দেয়া হবে।

মোঃনিয়ামুল আকঞ্জিঃ

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *