সোমবার , ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ,৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয় মেডিকেল কলেজ’র কেন্দ্রের পরিবেশ ও অবকাঠামোতে আমি আনন্দিত ”ড. শিরীণ আখতার”

 ব্রাহ্মণবাড়িয় মেডিকেল কলেজ’র কেন্দ্রের পরিবেশ ও অবকাঠামোতে আমি আনন্দিত ”ড. শিরীণ আখতার”

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত মেডিকেল কলেজের স্বাস্থবিধি মেনে ফাইনাল পেশাগত এমবিবিএস পরীক্ষা গত ১৬.০৮.২০২১ ইং তারিখ হতে শুরু হয়। তারই ধারাবহিকতায় আজ শনিবার(০৪ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকাভুক্ত পরীক্ষা কেন্দ্র ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার, কলেজ পরিদর্শক (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. শ্যামল রঞ্জন চক্রবর্তী এবং বিভিন্ন অনুষদের ডিনগণ। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ডাঃ মোঃ আবু সাঈদ, অধ্যক্ষ অধ্যাপক ব্রিগে. জেনা. ডাঃ মোহসেন উদ্দিন আহমেদ,

অধ্যাপক ডাঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, অধ্যাপক ডাঃ সৈয়দ আশফারুল আবেদীন, সহকারী অধ্যাপক রনজিত বিশ্বাস, সহকারী অধ্যাপক ডাঃ নাসিমা আক্তার, সহকারী অধ্যাপক ডাঃ ফিরোজ হাসান, সহকারী অধ্যাপক ডাঃ মোঃ সানিয়াদ আহমেদ সাকিন, সহকারী অধ্যাপক ডাঃ নাজনীন আক্তারসহ বিভিন্ন বিভাগের অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক, সহকারী অধ্যাপক ও শিক্ষকগণ। তাছাড়াও উপস্থিত চিলেন কলেজ সচিব আতিকুর রহমান,এ্যাকাউন্ট অফিসার ইফতেখার হোসনে খান, সাইন্টিফিক অফিসার আকলিমা আক্তার, লাইব্রেরীয়ান নয়ন মোদক, উচ্চমান সহকারী মনিরুজ্জামান রাতুল প্রমুখ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজের ৪৭ জন ছাত্র-ছাত্রী ফাইনাল পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে ভাইস চ্যান্সেলর বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয় মেডিকেল কলেজ’র কেন্দ্রের পরিবেশ ও অবকাঠামোতে আমি আনন্দিত। ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজের কেন্দ্র অত্যন্ত সুচারুভাবে সাজানো ও কেন্দ্রের পরিবেশ অত্যন্ত নিরিবিলি হওয়ায় পরীক্ষার্থীদের জন্য সস্থি দায়ক। কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার অত্র কলেজের পরিদর্শন বহিতে মত প্রকাশ করেন। উল্লেখ্য যে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজের ৩য় ব্যাচ ফাইনাল পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে এবং বিগত সময়ে ০২ টি ব্যাচ ফাইনাল পরীক্ষায় অংশ নিয়ে আশানুরুপ ফল নিয়ে উত্তীর্ণ হয়।

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *