মঙ্গলবার , ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ,২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঐতিহাসিক গণ অভ্যুত্থান দিবস পালিত

 ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঐতিহাসিক গণ অভ্যুত্থান দিবস পালিত


ডিঃব্রাঃ ডেস্ক
রোববার (২৪ জানুয়ারি) বিকেলে যথাযোগ্য মর্যাদায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে ভাসানী চর্চা কেন্দ্র, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার উদ্যোগে স্থানীয় শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা চত্ত্বরে ’৬৯এর গনঅভ্যুত্থান ও মওলানা ভাসানী শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ভাসানী চর্চা কেন্দ্র, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সংগঠক সাংবাদিক আবদুন নূরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ জাসদের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হোসাইন আহমদ তফছির, জেলা সিপিবির সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোঃ জামাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিলাল বণিক, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ খান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী, জেলা ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি ফাহিম মুনতাসির প্রমুখ।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ’৬৯ এর গণঅভ্যুত্থানের মহানায়ক মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী। মওলানা ভাসানী ’৬৯ এর গণআন্দোলনকে শহরের মধ্যবিত্তের গন্ডি থেকে গ্রামের কৃষকসহ সাধারণ মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে সক্ষম হয়েছিলেন। গণআন্দোলনের মাধ্যমে মওলানা ভাসানী স্বৈরশাসক আইয়ূব খানকে বাধ্য করেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে মুক্তিদানসহ আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা প্রত্যাহারে। পরবর্তীতে আইয়ূব খানও পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছিলেন। ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান ৭১এর মহান মুক্তিযুদ্ধের মাইলফলক।

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *