রবিবার , ১১ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ,২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আলামত সংগ্রহে ৩৮টি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন (সিআইডি)

 ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আলামত সংগ্রহে ৩৮টি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন (সিআইডি)

ডিঃব্রাঃ ডেস্কঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন স্থানে হেফাজতে ইসলাম ও মাদরাসাছাত্রদের তাণ্ডবের ঘটনাস্থলগুলো থেকে আলামত সংগ্রহ করছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) টিম।

বুধবার (৩১ মার্চ) বিকেলে সিআইডির ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কার্যালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

এতে বলা হয়েছে, গত ২৯ ও ৩০ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর, সরাইল ও আশুগঞ্জ উপজেলার ৩৮টি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করছে সিআইডির ক্রাইমসিন ও ফরেনসিক টিম। সংগৃহীত আলামতগুলো সিআইডির নিজস্ব ল্যাবে পরীক্ষা করা হবে। পরবর্তীতে মামলার তদন্ত কাজে সহায়তার জন্য পরীক্ষার রিপোর্ট তদন্তকারী কর্মকর্তার কাছে দেয়া হবে।

এছাড়াও সিআইডির বিশেষায়িত টিম গুরুত্বপূর্ণ ২৬টি স্থানের ভিডিও চিত্র ধারণ করেছে, যার মাধ্যমে বিক্ষোভকারীদের করা ধ্বংসযজ্ঞের চিত্র ফুটে উঠবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

এ বিষয়ে সিআইডির ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শাহারিয়ার রহমান বলেন, ‘আমরা এরই মধ্যে আমাদের কার্যক্রম শুরু করেছি। ঘটনাস্থল থেকে সংগ্রহ করা আলামতগুলো আদালতের অনুমতি নিয়ে পরীক্ষা করা হবে। পরীক্ষা করে পেট্রোল অথবা অন্যকিছু দিয়ে পোড়ানো হয়েছে কি-না সেটি বের করা হবে। পরবর্তীতে পরীক্ষার রিপোর্ট মামলার তদন্ত কাজে সহায়তার জন্য তদন্তকারী কর্মকর্তাকে দেয়া হবে।’

উল্লেখ্য, গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ব্যাপক তাণ্ডব চালায় হেফাজতে ইসলামের কর্মী ও মাদরাসাছাত্ররা। এ সময় পুলিশ সুপারের কার্যালয়, সিভিল সার্জনের কার্যালয়, মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়, পৌরসভা কার্যালয়, জেলা পরিষদ কার্যালয় ও ডাকবাংলো, খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানা ভবন, আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গন, আলাউদ্দিন খাঁ পৌরমিলনায়তন ও শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা চত্বরসহ বেশ কয়েকটি সরকারি-বেসরকারি স্থাপনায় হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এই ঘটনায় নিহত হয় ৯ জন।

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *