সোমবার , ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ,৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণপাড়ায় দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া, আহত ৩

 ব্রাহ্মণপাড়ায় দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া, আহত ৩

ডিঃব্রাঃ ডেস্কঃ গতকাল শনিবার (২৮ নভেম্বর ) রাতে কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা সবুজপাড়া, বড়ধুশিয়া ও ধান্যদৌল এলাকায় উপজেলা পরিষদ উপ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু জাহের (আনারস প্রতীক) ও আওয়ামী লীগের প্রার্থীর (নৌকা প্রতীক) সমর্ধকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।


ভাংচুর করা হয়েছে আনারস প্রতীকের নির্বাচনী কার্যালয় ও প্রচারণায় ব্যবহৃত একটি গাড়ি। সংঘর্ষে দুই পক্ষের অন্তত তিনজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

আগামী ১০ ডিসেম্বর এ উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর খান চৌধুরী। আর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আনারস প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন প্রয়াত চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবু তাহেরের ছোট ভাই আলহাজ্ব আবু জাহের।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার (২৮ নভেম্বর) রাত ৮টা থেকেই উপজেলার সবুজপাড়া এলাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস বানানো নিয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। এরপর রাত ১০টা পর্যন্ত চলে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া। এসময় আনারস প্রতীকের প্রার্থীর অফিস ভাংচুর করা হয়। এ খবর বড়ধুশিয়া ও ধান্যদৌল এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সেখানেও দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। এসময় ধান্যদৌল এলাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী একটি প্রাইভেটকার ভাংচুর করা হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

ব্রাহ্মণপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজম উদ্দিন মাহমুদ জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকে আলহাজ্ব আবু জাহের ও আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের জাহাঙ্গীর খান চৌধুরীর সমর্থকদের মধ্যে এই ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। গাড়ি ভাংচুরের তথ্য নিশ্চিত নই, তবে ৩ জন আহতের খবর শুনেছি। আমরা পুলিশ পাঠিয়ে তাৎক্ষণিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি।

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *