মঙ্গলবার , ১১ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ,২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে “মানবতার দূত” ইউএনও মোহাম্মদ মাসুম

মো. মেহেদী হাসানঃ নবীনগর প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় “মানবতার দূত” হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেছেন নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম। নবীনগর উপজেলায় নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করার পর থেকে বিভিন্ন মানব কল্যাণমূলক কাজ করে সুধীজন থেকে শুরু করে নবীনগরের সাধারণ মানুষের ভালবাসা কুড়িয়েছেন তিনি । তাঁর জনহিতৈষী কর্মকান্ডে অনেকে হয়েছেন উৎসাহিত ও অনুপ্রাণিত। শুধু একজন সরকারি কর্মকর্তা হিসেবেই নয় একজন সাধারণ মানুষ, একজন অভিভাবক, একজন সাংস্কৃতিক ব্যক্তি হিসেবে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। সাধারণ মানুষের মাঝে সরকারি ও ব্যক্তি উদ্যোগের সহায়তা তিনি নিজে উপস্থিত থেকে ও মনিটরিং এর মাধ্যমে পৌছে দিচ্ছেন। তিনি শীর্তাতদের সহায়তার জন্য মধ্য রাতে ছুটে বেড়াচ্ছেন ছিন্নমূল অসহায় মানুষের জন্য রাস্তা-ঘাটে, সিএনজি স্টেশনে, বাস স্টেশনে, নৌকা ঘাটে। আবার খুব ভোরে মনিটরিং করছেন মাংস ব্যবসায়ীদের জবাইকৃত পশুর খাদ্য গুন ও কসাই খানার পরিবেশ যেন পরিষ্কার-পরিছিন্ন থাকে। নিয়মিত মনিটরিং করছেন নবীনগর উপজেলার বাজার ব্যবসা ও আইন শৃংখলা পরিস্থিতি। তাঁর উদ্যোগে নবীনগর নারায়ণপূর গ্রামের অসহায় পরিবার পেয়েছে মাথা গোঁজার ঠাঁই ঘর। যেখানে অসহায় পরিবারটি রাত্রি যাপন করতেন খোলা জায়গায়। তাঁর সরকারি ও ব্যক্তিগত উদ্যোগ এবং সামাজিক সংগঠনের সহযোগিতায় নবীনগরে বেশ কয়েকটি অসহায় রোগক্রান্ত শিশু পেয়েছেন চিকিৎসা সেবার আর্থিক ও উন্নত চিকিৎসার জন্য ডাক্তারদের পরামর্শ ও হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার জন্য সহযোগিতা। তাছাড়া নবীনগরে অসহায় দলিত হরিজন সম্প্রদায় ও ঋষিপল্লীর উন্নয়নে তার ভূমিকা অনস্বীকার্য। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার যে প্রত্যয় ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে আপামোর সাধারণ মানুষের উন্নয়নে যে বরাদ্দ হচ্ছে তা যেন সঠিক ভাবে ও অসহায় পরিবারের মাঝে পৌঁছায় তার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা ও সচেতনতা অবলম্বন করছি এবং জাতি-ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পারলে আমার নিজেরও ভালো লাগে।

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *