#তাহারা ব্যর্থ, #বিলিভ মি আপনি #সফল। তবে কেন #হতাশা?

0

#তাহারা ব্যর্থ, #বিলিভ মি আপনি #সফল। তবে কেন #হতাশা?
যতটুকু পারেন করবেন কারণ দায়টি নিজের বিবেকের কাছেঃ

(এটা একটি ধর্মীয় পোস্ট)

ডা. মুহিব্বুর রহমান রাফে

আমি জানি নিচের কথাগুলো অনেকের পছন্দ হবেনা।
সমালোচনাও হবে। কাউকে ডিমোটিভেটেড করতে চাইনা। কিন্তু বিশ্বাস করেন; আপনাদের হায় হুতাশ; হতাশাও আমার ভালো লাগেনা। সবল বা দুর্বল বিশ্বাসী, শুধু এতটুকু হলে পোস্টের সামনে এগুবেন, নাহলে ক্রল করে এগিয়ে যান। সময় নষ্ট করার দরকার নেই।

আমি আপনার সাথে আপাত একমত হলাম, ব্যর্থ, সবাই ব্যর্থ।
ট্রাম্প,জুসেপ্পে কন্তে, বরিস জনসন, মোদী কোন দেশ সফল?
আপনারও কপাল খারাপ। গরীব দেশে জন্মেছেন। অভাবের সংসার।
আবার জাতিগতভাবেই আমরা অকৃতজ্ঞ।
যারা এ জাতির জন্য উজাড় করে দেয়া মহান মানুষদের নিজেরাই হত্যা করেছে।
মানুষ অকৃতজ্ঞ,তো কি করবেন? বসে যাবেন? বুকে হাত দিয়ে বলেন তো,
পারবেন? সত্যিই কি পারবেন?

কিন্তু আমরা কি জানতাম না; এটা একটি থ্যাঙ্কলেস জব?
কেউ প্রাপ্য সম্মানটুকু দেয়না। এ পেশায় আমি চির বঞ্চিত; এটাও কিন্তু অজানা ছিল না। আমি স্বেচ্ছায় এ পথ বেছে নিয়েছি।

চাকুরী শেষে পেনশন/গ্রাচুইটির টান যদি চাকুরিকে লোভনীয় করে, প্রণোদনা,সার্টিফিকেট, সম্মাননা, জীবন বীমা যদি কাজকে আরও বেশি স্পিডি করে, অবশ্যই সেটাও অধিকার।
কিন্তু বিশ্বাসীদের জন্য আরও কত লোভনীয় জিনিস আছে,
সেটিকে কেন হিসাবে আনছেন না?

“যখনই কোন ব্যক্তি সন্ধ্যাবেলায় কোন রোগীর সাক্ষাৎ লাভে যায়, তখনই তার সাথে ৭০ হাজার ফিরিশতা বের হয়ে সকাল পর্যন্ত তার জন্য আল্লাহর নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করতে থাকে। আর যে ব্যক্তি সকালবেলায় রোগীর সাথে দেখা করতে আসে, সে ব্যক্তির সাথেও ৭০ হাজার ফিরিশতা বের হয়ে সন্ধ্যা পর্যন্ত তার জন্য আল্লাহর নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করতে থাকে।’’[আহমাদ, ইবনে মাজাহ, বাইহাকী, প্রমুখ, সহীহুল জা’মে হা/৫৭১৭) এটাও কি একটা প্রণোদনা নয়?

যে ব্যক্তি কোন রোগীকে জিজ্ঞাসা করে; তাকে এক (অদৃশ্য) আহ্বানকারী বলেন, ‘সুখী হও তুমি, সুখকর হোক তোমার ঐ যাত্রা। আর তোমার স্থান হোক জান্নাতের প্রাসাদে।’’[তিরমিযী, ইবনে মাজাহ, ইবনে হিববান, সহীহ তিরমিযী হা/১৬৩৩)
এর চেয়ে প্রণোদনাযুক্ত দ্বিতীয় একটি পেশার নাম বলেন দেখি?

আমি জানি আপনি ঝুঁকির মাঝে, অনেক চাপে আছেন। নিষ্পেষিত। যা পাবেন তার তো হিসাব কষছেন। কিন্তু যা সেভ হচ্ছে, তার কি কোন হিসাব রাখছেন?

পৃথিবী জুড়ে বেকার হয়ে পড়া কোটি মানুষের ভীড়ে নয়, দেশেই অনেক বেসরকারী প্রতিষ্ঠাণে ছোট ভাইবোনের পাশে ঘরে বসে বেতন পাচ্ছি, এটা কি খুব ক্ষুদ্র? ভাবুনতো দিন আনে দিন খায় মানুষের এখনকার করুন অবস্থা।

সুস্থতা বা অসুৃস্থতা আপনার হাতে নয়।
আপনার পরিবারের সবাই সুস্থ আছে, এটি কি বড় সেভিংস নয়?
যানবাহনহীণ, ভীতিকর এই শূণ্য হাসপাতালে আইসিইউতে বাবা মা স্ত্রী, সন্তান কাউকে নিয়ে দৌড়াতে হচ্ছেনা, এটা কি বড় পাওয়া নয়? আপনার ভালো কাজ, দান বা সাদকা আপনার ও পরিবারের নিরাপত্তা বীমা। এ দুঃসময়ে বীমার ব্যালেন্স কত আছে, হিসাব নিয়েছেন?

আমি ভয় পাই, যেন নিজে আবার অকৃতজ্ঞ বান্দা না হয়ে যাই?
আমার পেশা, আমার পরিচয়, আমার আত্মতৃপ্তি।
অনেক অনেক ঋণশোধের বিরাট সুযোগের দ্বার; ব্ল্যাঙ্ক চেক।
কিসের ঋণ?!!

“কোন ব্যক্তি যখন প্রতিদিন সকালে সূর্য দেখার সুযোগ পায়; (সে ঋণী); তখন তার প্রত্যেক গ্রন্থির জন্য সাদকা দেয়া বাধ্যতামূলক হয়ে যায়। দু’জন মানুষের মাঝে ন্যায়বিচার/সমতা করা হচ্ছে সাদকা, কোন আরোহীকে তার বাহনের উপর বা কাউকে বোঝা উঠাতে সাহায্য করা হচ্ছে সাদকা, ভাল কথা হচ্ছে সাদকা, সালাতের জন্য প্রত্যেক পদক্ষেপ হচ্ছে সাদকা এবং কষ্টদায়ক জিনিস রাস্তা থেকে সরানো হচ্ছে সাদকা।”[বুখারী: ২৯৮৯, মুসলিম: ১০০৯]

সুতরাং আপনি সারাদিন ছোটখাট যা হোক, ভালো কাজ করার চেষ্টা করতে থাকবেন, এটা কর্তব্য নয়, বাধ্যবাধকতা।

অবশ্যই দাবী চলবে অধিকারের।
অধিকারের জন্য যারা কাজ করছেন, তাদের জন্য দোয়া।
কারণ সবার আগে আপনার ও পরিবারের নিরাপত্তা।
নিরাপদ মনে না করলে বিরত থাকা আপনার অধিকার।
তবে তার মাঝেও মনোবল ধরে থাকুন। পরস্পরকে সাহস যোগান।
একটিভ থাকুন। সতর্ক থাকুন। যুদ্ধের সময় যে যার অবস্থান থেকে কাজ করে গড়ি, পজিটিভ বাংলাদেশ।

আপনিতো বিশ্বাসী, আপনার সর্বস্ব হারাবার কিছু নেই।
বরং আরও বেশি বেশি মানুষের জন্য করতে থাকুন।
একভাবে না হয়, অন্য ভাবে দিতে থাকুন। । অবশ্যই বলব,সাধ্য অনুযায়ী।

দেবার পারদ উঠাতে উঠাতে নিয়ে যাব; আকাশের শেষ সীমায়।
সে স্তম্ভের উপরে দাঁড়িয়ে থেকে নীচের হায় হুতাশ করা, বড় মনে করা, অযোগ্য,আত্মতুষ্টিতে ভোগা, বঞ্জিত করা স্বার্থপরদের দিকে তাকিয়ে শেষ হাসিটি হাসব। তাচ্ছিল্যের হাসি। গর্বের হাসি। বিজয়ের হাসি।
সব হতাশার পরেও এইটুকুর জন্যেই কাজ করে যাচ্ছি।
সবার জন্য শুভকামনা।

কনসালটেন্ট
ফিজিক্যাল মেডিসিন এন্ড রিহ্যাবিলিটেশন
সরকারি কর্মচারী হাসপাতাল, ঢাকা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে