মঙ্গলবার , ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ,৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

জেলা প্রশাসকের রোগমুক্তি কামনায় শহরের কেন্দ্রীয় মন্দিরে প্রার্থনা অনুষ্ঠিত

 জেলা প্রশাসকের রোগমুক্তি কামনায় শহরের কেন্দ্রীয় মন্দিরে প্রার্থনা অনুষ্ঠিত

ডিঃব্রাঃ
করোনাকালে প্রথম সারির যোদ্ধা হিসেবে রাষ্ট্রের কাজ করতে গিয়ে জেলার এ প্রান্ত থেকে ওই প্রান্তে জনসাধারনে জন্যে কাজ করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পরিশ্রমি জননন্দিত জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান। জনসাধারনের পাশে থেকে কাজ করতে গিয়ে তিনি মহামারী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এমন খবরে পুরো জেলাবাসী ন্যায় আজ বুধবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসকের রোগমুক্তি কামনায় ব্রাহ্মণ পুরোহিত কল্যাণ সংঘের পক্ষ থেকে শহরের কেন্দ্রীয় মন্দির শ্রীশ্রী আনন্দময়ী কালিবাড়ী প্রাঙ্গণে বিশেষ প্রার্থনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রার্থনা সভাটি পরিচালনা করেন ব্রাহ্মণ পুরোহিত কল্যাণ সংঘের সাধারণ সম্পাদক পন্ডিত প্রবীর চন্দ্র আচার্য্য।

সভায় ব্রাহ্মণ পুরোহিত কল্যাণ সংঘের সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রবীর চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে প্রার্থনা সভায় সামিল হন শ্রীশ্রী কালভৈরব মন্দিরের ট্রাষ্টি কমিটির সভাপতি পলাশ ভট্টাচার্য, আনন্দময়ী কালিবাড়ী কমিটির ট্রাষ্টি ইঞ্জিনিয়ার বিভাশ রায়, ট্রাষ্টি কমিটির সদস্য ও ভুবন মঙ্গল কল্যাণ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশিষ পাল, আনন্দময়ী কালিবাড়ীর প্রধান পুরোহিত মদন মোহন চক্রবর্তী, সাংবাদিক উজ্জল চক্রবর্তী, বিশিষ্ট আইনজীবি এড: রাকেশ রায়, দিলীপ ভট্টাচার্য্য, পিযুষ ভট্টাচার্য্য, পলাশ আচার্য্য, জীবন ভট্টাচার্য, বিশাল ভট্টাচার্য্য, সহ ব্রাহ্মণ পুরোহিত কল্যাণ সংঘের সদস্যরা।

প্রার্থনা সভায় ব্রাহ্মণ পুরোহিত কল্যাণ সংঘের সাধারণ সম্পাদক পন্ডিত প্রবীর চন্দ্র আচার্য সহ বক্তরা বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক হায়াত-উদ-দৌলা খান যিনি সব সময় আমাদের পাশে করোনা কালে থেকেছেন। খোঁজ খবর রেখেছেন। আজ তিনি রাষ্ট্রের কাজ করতে গিয়ে প্রথম সারির যোদ্ধা হিসেবে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এমন খবরে আমরা ব্রাহ্মণ পুরোহিত কল্যাণ সংঘের সদ্যরা উদ্বিগ্ন। আমরা আজ বিশেষ প্রার্থনার মাধ্যমে উনার আশু রোগমুক্তি কামনা করছি। পরম করুনাময় যেন উনার সর্বাঙ্গীন মঙ্গল করেন সেই প্রার্থনা করছি।

পাশাপাশি বৈশ্বিক এই করোনার ক্রান্তি লগ্নে পৃথিবীর সকল জাতিযেন এই কঠিন রোগ থেকে মুক্তি পায় সে জন্যে পরমেশ্বর ভগবানের কাছে আমরা প্রার্থনা করেছি।

প্রার্থনা সভা চলাকালে সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের পবিত্র গ্রন্থ বেদ, চন্ডি, গীতা থেকে বিভিন্ন স্লোক ও পবিত্র মন্ত্র পাঠ করাহয়।

নিয়ামুল আকঞ্জিঃ

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *