সোমবার , ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ,৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত তার পরও রোগী দেখেন চেম্বারে বসে

 চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত তার পরও রোগী দেখেন চেম্বারে বসে

ডিঃব্রাঃ ডেস্কঃ
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক চিকিৎসক রোগী দেখছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদরে বেসরকারি একটি ক্লিনিক হলি ল্যাবে বসে । জানা যায় আক্রান্ত ঐ চিকিৎসক হবিগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালের অর্থোপেডিকস বিভাগের জুনিয়র কনসালট্যান্ট শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ । তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের কুমারশীল মোড়ে হলি ল্যাব হাসপাতালে নিয়মিত রোগী দেখেন ।

গত ১৪ জুন শ্যামলের স্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। নমুনার ফলাফল পজিটিভ আসে। স্ত্রী করোনাভাইরাস পজিটিভ হওয়ায় শ্যামলও অ্যান্টিজেন পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভ এলেও পাঠানো নমুনার পিসিআর ল্যাবের ফলাফল পজিটিভ আসে।

এর কিছুদিন পর শ্যামল আবারও অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করালে ফলাফল নেগেটিভ আসে। একই নমুনা ঢাকায় পাঠালে শনিবার (২৬ জুন) তার নমুনা ফলাফল পজিটিভ আসে। শ্যামলকে তার করোনাভাইরাস পজিটিভ হওয়ার বিষয়টি সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে জানানো হয়। কিন্তু এরপরও রোববার বেসরকারি হাসপাতালের চেম্বারে বসে তিনি রোগী দেখেন। এতে করে শ্যামলের চেম্বারে আসা রোগীরা এখন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে পড়েছেন।

গতকাল করোনাভাইরাস পজিটিভ হয়েও রোগী দেখার বিষয়ে জানতে চাইলে ডা. শ্যামল রঞ্জন দেবনাথ বলেন, ‘কিছুক্ষণ আগে আবার করোনাভাইরাস পজিটিভ হওয়ার বিষয়টি জানতে পেরেছি। রোগীদের আগেই সময় দিয়ে রেখেছিলাম’।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. হেলাল উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কারণে ডা. শ্যামলকে আইসোলেশনে থাকার জন্য ছুটি দেওয়া হয়েছে। আইসোলেশনে না থেকে যদি বেসরকারি হাসপাতালে রোগী দেখেন তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

digital

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *