বরাবরের মত এবার কথা রাখেননি সরাইল পিডিবি। মাইকে বিকাল ৫টায় বিদ্যুৎ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েও ২০ মিনিট পর দিয়েছেন। আজ শনিবার একাদশ শ্রেণিতে অনলাইনে ভর্তির আবেদন করতে চরম দূর্ভোগের শিকার হয়েছে সরাইলের শিক্ষার্থীরা। ভুক্তভোগীরা জানায়, গাছের ডালপালা কাটার কথা বলে মাসের প্রত্যেক শনিবারে দিনের বেলা ৯ ঘন্টা বিদ্যুৎ থাকে না সরাইলে। ফলে সরাইলের গ্রাহকরা চরম দূর্ভোগে পড়েন। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে সরাইল উপজেলা আইনশৃঙ্খলা সভায় অনেক আলোচনা হয়েছে। গণমাধ্যমে একাধিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। এরপরও বন্ধ হয়নি এ ধারা। এরই ধারাবাহিকতায় গত শুক্রবার সরাইল পিডিবি মাইকিং করেন সংস্কার কাজের জন্য শনিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ থাকবে না। শনিবার সকাল ঠিক ৮টায় চলে যায় বিদ্যুৎ। সারা দেশের সাথে আজই প্রথম একাদশ শ্রেণিতে অনলাইনে ভর্তির আবেদন শুরূ হয়েছে। বিদ্যুৎ না থাকায় দিনভর সরাইলের শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারেনি। প্রথম দিনেই বড় ধরণের একটি ধাক্কার শিকার হয় সরাইলের শিক্ষার্থীরা। দীর্ঘ সময় বিদ্যুৎ না থাকায় বন্ধ হয়ে সকল ফ্রিজ। চার্জ না দিতে পারায় মুঠোফোন সেট গুলো নিস্ক্রিয় হয়ে পড়ে। রোগীদের কষ্ট বেড়ে যায়। ৯ঘন্টা পরও বিদ্যুৎ আসেনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে থাকেন গ্রাহকরা। অবশেষে মাইকে ঘোষিত সময়ের ২০ মিনিট পর আসে বিদ্যুৎ। এ বিষয়ে সরাইল পিডিবি’র নির্বাহী প্রকৌশলী (বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ) এ জেড এম আনোয়ারূজ্জামান বলেন, সংস্কার ও সংরক্ষণ কাজের জন্য বিদ্যুৎ সরবরাহ মাইকিং করেই বন্ধ রাখা হয়েছিল।

মাহবুব খান বাবুল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here